নেপালে বিধ্বস্ত প্লেনটির মালিকানা নিয়ে জানা গেল চমকপ্রদ তথ্য

নেপালে বিধ্বস্ত এটিআর-৭২ বিমানটির মালিকানা এক সময় ছিলো ভারতীয় এক সংস্থার। পরে থাইল্যান্ডের মালিকানায় যায় প্লেনটি। আরও চার বছর পর

এটি যায় নেপালের ইয়েতি এয়ারলাইন্সের হাতে। রবিবার (১৫ জানুয়ারি) নেপালের পোখরা বিমানবন্দরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিধ্বস্ত হয় যাত্রীবাহী বিমানটি।

ইয়েতি এয়ারলাইন্সের এটিআর-৭২ উড়োজাহাজটি আগে ছিলো ভারতীয় এক সংস্থার অধীনে। পরে ভারতে সংস্থাটি বন্ধ হয়ে গেলে থাইল্যান্ডের হাতে চলে যায় ওই বিমান। তারপর সেখান থেকে বিমানটি কিনে নেয় নেপালের বিমান সংস্থা ইয়েতি এয়ারলাইন্স।

থাইল্যান্ডের নুক এয়ারে বেশ কয়েক বছর বিমানটি ব্যবহৃত হয়। তারপর ২০১৯ সালে নেপালের ইয়েতি এয়ারলাইন্স কিনে নেওয়ার পর থেকে সেই দেশেই যাত্রী বহন করত বিমানটি। রবিবার সকালের দুর্ঘটনায় যা ধ্বংস হয়ে গেছে।

এর আগে কখনও কোনও এটিআর-৭২ বিমান নেপালে দুর্ঘটনার কবলে পড়েনি। ইয়েতি এয়ারলাইন্স ছাড়া নেপালের বুদ্ধ এয়ারলাইন্সও এই বিমান ব্যবহার করে। বিমানের নামে ‘৭২’ সংখ্যাটি রাখার কারণ, এই ধরনের বিমানে মোট ৭২ জনের বসার জায়গা রয়েছে।

রবিবার ক্রু সদস্য এবং যাত্রীদের নিয়ে নেপালের ওই বিমানে মোট ৭২ জন ছিলেন। সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ পোখরা বিমানবন্দরে নামার ঠিক আগে বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। সূত্র: আনন্দবাজার

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *