Breaking News

রাতে ভাত না রুটি, সুস্থ থাকতে কোনটা খাবেন? জেনে নিন

কেউ বলবেন ভাত, তো কারও পছন্দের তালিকায় রয়েছে রুটি। ভাতের প্রতি বাঙালিদের অতিরিক্ত দু’র্বলতা সবার জানা। রাতের খাবারেও ভাত খেতেই পছন্দ করেন বেশিরভাগ মানুষ।

কিন্তু যারা স্বাস্থ্য সচেতন, তারা রাতের মেনু বদলে নিয়েছেন। আজকাল ভাতের বদলে রুটিতেই ভরসা রাখছেন অনেকে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রাতে ভাত-রুটি যাই খান না কেন কম পরিমাণে খাওয়া উচিত।

রাতে ভাত বেশি কেন নয়? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এক প্লেট ভাতে (প্রায় ৮০ গ্রাম) প্রায় ২৭২ ক্যালোরি থাকে। সন্ধ্যার পর কার্বোহাইড্রেট এড়িয়ে চলা উচিত। বিশেষ করে হাই ব্ল্যাড প্রেসার,

ডায়াবেটিস, স্থু’লতার সমস্যা থাকলে তো মোটেই উচিত নয়। ঘুমানোর আগে কার্বোহাইড্রেট শরীরে গেলে গ্রোথ হরমোন এবং টেস্টোস্টেরন নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। রাতে খুব বেশি ভাত খেলে ডায়াবেটিস,

স্থুলতার মতো ক্রনিক রোগের ঝুঁ’কি বাড়ে। ভাতে ফাইবারও কম থাকে। ফলে, হ’জমেরও সমস্যা হতে পারে।রাতে বেশি রুটির ক্ষেত্রে সমস্যা কোথায়? আটা বা ময়দা, যেকোনো ধরনের রুটিতেই কার্বোহাইড্রেট থাকে।

২০ থেকে ২৫ গ্রাম আটায় তৈরি একটা রুটিতে থাকে প্রায় ৭০ ক্যালোরি। এবার কয়টা রুটি খাচ্ছেন সেটি হিসেব করে দেখুন কতটুকু ক্যালোরি গ্রহণ করছেন। একটি রুটিতে ১৫ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট থাকে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দৈনিক পুষ্টির মাত্র ৪৫ থেকে ৬৫ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট থেকে নেওয়া উচিত। তাই আটা-ময়দা বা ভাত অথবা দু’য়ে মিলিয়েই রাতে খেতে পারেন। তবে পরিমাণটা অবশ্যই বুঝে খেতে হবে।

About jannatul ferdous

Check Also

শ্বশুর বাড়ির ইফতারিকে না বলি- আমাদের সচেতনতাই পারে জুলুম থেকে রক্ষা করতে

আমরা চাইলে সমাজকে বদলাতে পারি, বদলাতে পারি ঘুনেধরা সমাজের জুলুমের রিতি- সামাজিক সচেতনতার জন্য দরকার …