Breaking News

বাঁচাল তৃনমূলে অস্থির আওয়ামী লীগ

শুরুটা করেছিলেন কাদের মির্জা। এখন সেই পথ ধরে সারাদেশে আওয়ামী লীগের নেতাদের মুখে যেন খই ফুটেছে। যার যা ইচ্ছা তাই বলছেন।

তৃনমূলের লাগামহীন কথাবার্তায় বিব্রত এবং অস্থির আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বলছেন ‘তৃণমূলের কিছু অতি উৎসাহীদের বেসামাল কথাবার্তার লাগাম এখনই টেনে ধরতে না পারলে, সামনে বিপদ।’

গত বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এক অদ্ভুত তত্ত্ব দিয়েছেন। নূর উদ্দিন চৌধুরী ওরফে নয়ন, পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষ্যে এক সমাবেশে বলেছেন ‘ইভিএম এমন এক সিস্টেম, নৌকার বাইরে কেউ ভোট দিলে ধরি হালান যায়।

চিটাগাং এক কেন্দ্রে নৌকা পাইছে ২ হাজার ৩০০ ভোট। এক ভোট পাইছে ধানের শীষ। পরের দিন এক ভোট কে দিচ্ছে, ওই ওয়ার্ডের নেতারা তারে ধরি হালান।’ এই ভয়াবহ শব্দ বো’মার রেশ কাটতে না কাটতেই ঠাকুরগাঁওয়ে এক আওয়ামী লীগ নেত্রী আরেক বেসামাল কথা বললেন।

কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম। বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও এর ২ নম্বর ওয়ার্ডের এক নির্বাচনী সভায় তিনি বলেন ‘যাদের মনে ধানের শীষের সঙ্গে প্রেম আছে তারা কি করবেন? ১৩ তারিখে ঠাকুরগাঁও ছেড়ে চলে যাবেন।

১৩ তারিখ সন্ধ্যার পর তাদের দেখতে চাই না। তাদের ভোট কেন্দ্রে আসার কোন প্রয়োজন নেই। তাহলে ভোট কেন্দ্রে যাবে কে? নৌকা, নৌকা আর নৌকা।’

এরা কেউই আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ নেতা নন। নীতি নির্ধারকও নন। কিন্তু এসব বক্তব্য বিরোধীদের জন্য রসদ হিসেবে কাজ করছে। এতদিন ধরে ইভিএম এবং ভোট নিয়ে বিরোধী দল যে সব অভিযোগ করে এসেছে, এসব বক্তব্য যেন এই অভিযোগের প্রমাণ পত্র। গণমাধ্যম এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই বক্তব্য গুলো এখন মানুষের কাছে পৌঁছে গেছে। এটি আওয়ামী লীগকেই বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে ফেলছে। জনগণের মধ্যেও এরকম একটা ধারনা তৈরি হচ্ছে যে, বিএনপির বক্তব্যের পেছনে হয়তো যুক্তি আছে। আওয়ামী লীগের একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেছেন ‘এই সব বাচাল অর্বাচীনদের লাগামহীন কথা আওয়ামী লীগের সব অর্জনকে ম্লান করে দিচ্ছে।

আওয়ামী লীগের একজন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেছেন ‘কাদের মির্জা যখন সব শিষ্টাচার লঙ্ঘন করে একের পর এক লাগামহীন কথাবার্তা বললেন, তখন আমরা তাকে থামাতে পারিনি। তার দেখাদেখি এখন যে যেমন পারছে তেমন করে লাইম লাইটে আসার জন্য অসংলগ্ন, দায়িত্বহীন কথাবার্তা বলছে। এটা আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় ক্ষতি করছে।’ এসব বাচালদের এখনই না থামানো গেলে ভবিষ্যতে এরাই আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় ক্ষতি করবে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

About Tahsin Rahman

Check Also

এবার আইনের আশ্রয় নিচ্ছেন তামিমার দ্বিতীয় স্বামী অলক!

নাসির মানে ব্যাড বয় খ্যাত নাসির ও তামিমার বিবাহ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তথা সকল মিডিয়া …