Breaking News

কাজী জাফরউল্লাহ নমিনেশন বাণিজ্য করায় নৌকার সর্বনাশ হয়েছে

ফরিদপুর-৪ আসনের এমপি ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, আগামী ১১ এপ্রিল ভাঙ্গা পৌরসভার নির্বাচন। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র আবু রেজা

মো. ফয়েজকে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন। আগামীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় উন্নয়ন দিয়ে ভা’ঙ্গা পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তরিত করব।

জনগণের মনের ভাষা বুঝেই আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও নমিনেশন বোর্ডে সভাপতি যে সি’দ্ধান্ত নিয়েছেন আমরা তার হাতকে শক্তিশালী করতেই নৌকায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবো।

বুধবার সন্ধ্যায় ভা’ঙ্গা উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের চরচান্দ্রা গ্রামের নিজ বাসভবনে তিনি এ সব কথা বলেন। পৌরসভার মেয়র প্রার্থী এ সময় নিক্সন চৌধুরী হাতে ফুলের নৌকা তুলে দিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন।

নিক্সন চৌধুরী বলেন, এর আগে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ নমিনেশন বাণিজ্য করার কারণে ভাঙ্গায় যেকোনো নির্বাচনে নৌকার ভরাডুবি হয়েছিল।

এবার প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থীদের নমিনেশন প্রদান করা হবে। আমি বরাবরই বলেছি- ফরিদপুর-৪ আসনে দীর্ঘ ৭ বছর ধরে নৌকার কোনো প্রার্থী বিজয়ী হতে পারেনি,

সেটা নৌকার কোনো দোষ নয়। দোষ হচ্ছে একটি মাত্র ব্যক্তি কাজী জাফরউল্লাহ। তিনি নমিনেশন বাণিজ্য করাতেই নৌকার সর্বনাশ হয়েছে। আগামীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

হাতকে শক্তিশালী করতে প্রতিটি নির্বাচনে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে হবে।কাজী জাফরউল্লাহ নমিনেশন বাণিজ্য করায় নৌকার সর্বনাশ হয়েছে: নিক্সন চৌধুরী
এ সময় মেয়র প্রার্থী আবু রেজা মো. ফয়েজ বলেন,

উন্নয়ন ও মূল্যায়নের রূপকার বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী গত ৭ বছরে যে উন্নয়ন তিন থানায় করেছেন তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। তার রাজনীতিতে একটি আদর্শ রয়েছে।

সেই কারণেই পর পর তিনি দুইবার নৌকার প্রার্থীকে হারিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। আমি তার আদর্শকে ধারণ করে আগামীতে ভাঙ্গা পৌরসভার উন্নয়নসহ গঠনতন্ত্র অনুযায়ী রাজনীতি করব।

আগামী ১১ এপ্রিল আমাকে নৌকায় ভোট দিয়ে পুনরায় মেয়র নির্বাচিত করে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে সকলের প্রতি আহ্বান থাকল। একই সঙ্গে আমি দীর্ঘ ২২ বছর ভাঙ্গা পৌরসভার মেয়র পদে আছি।

এতদিন আমি জনগণের শাসক নয়, সেবক হয়ে কাজ করে আসছি। আগামীতেও নিক্সন চৌধুরীর নির্দেশনায় আধুনিক পৌরসভা গঠন করবো ইনশাল্লাহ।অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শাহিনুর রহমান শাহিন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান,

সদরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফি কাজী, ভা’ঙ্গা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোবহান মুন্সি, ভা’ঙ্গা বাজার বনিক সমিতির সম্পাদক আবু জাফর মুন্সি, আলগী ইউনিয়ন ন্যাশনাল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহাতাব উদ্দিন রুবেল, এমপি নিক্সন চৌধুরীর আস্থাভাজন আলগী ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পলাশ মিয়া, আলগী ইউপি চেয়ারম্যান কাওছার ভুঁইয়া, আলগী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ম.ম. ছিদ্দিক, ভা’ঙ্গা সরকারি কে.এম কলেজের সাবেক জিএস লাবলু মুন্সি প্রমুখ।

About jannatul ferdous

Check Also

আল জাজিরার রিপোর্ট বাংলায়- মোদিবিরোধী বিক্ষোভের পরে বাংলাদেশ ইসলামপন্থী দলটির বিরুদ্ধে

হেফাজতে ইসলামের প্রভাবশালী নেতা গত মাসে ভারতীয় নেতার সাক্ষাতকারের বিরুদ্ধে মারাত্মক বিক্ষোভের জন্য গ্রেপ্তার হওয়া …