Breaking News

এখন গুণ্ডারা হয় মেয়র, মাফিয়ারা মন্ত্রী : রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, যারা বিনাভোটে মন্ত্রী-এমপি কিংবা মেয়র হয় তাদের মধ্যে কোনো মানবতা থাকে না। ন্যূনতম সংস্কৃতিবোধ থাকে না।

তারা সবসময় মানুষের সঙ্গে গুণ্ডা-মাফিয়ার মতো আচরণ করে। জাতির এই অ’ন্ধকার দুঃসময়ে গুণ্ডারা এখন মেয়র হয়, মাফিয়ারা হয় মন্ত্রী।আজ সোমবার বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম

খালেদা জিয়াসহ সকল অসুস্থ নেতাকর্মীদের রোগমুক্তি কামনায় এক দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।রিজভী বলেন, ঘর থেকে বের হলে কেন যেন পরিচিত একটি দেশে বাস করছি বলে মনে হয় না।

একটা স্বাভাবিক পরিবেশের মধ্যে আমরা আছি বলে মনে হয় না। গাড়িতে যখন আসি ডান দিকে বাম দিকে সবসময় উঁকি দেই। মনের মধ্যে আ’তঙ্ক থাকে, গাড়ি থামিয়ে গাড়ি থেকে বের করে ফেলবে কিনা বা গাড়ির ওপর আ’ক্রমণ করবে কিনা?

অথবা সিএনজিতে আছি, সিএনজি থামিয়ে আমাকে অদৃশ্য করে দিবে কিনা? এইসব আ’তঙ্ক এইসব ভয় আমাদেরকে প্রতিনিয়ত গ্রাস করে চলে ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনার ছোটভাই বলছে বেগমগঞ্জে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির জন্য দায়ী আপনি।

কোম্পানীগঞ্জের জন্য দায়ী তার ভাবি, অর্থাৎ আপনার স্ত্রী। এই যে গৃহবিবাদ সেটাও পত্রিকায় এসেছে। ওবায়দুল কাদের সাহেব, আপনার এলাকায় কী ঘটছে পত্রপত্রিকায় আপনি পড়েন না? আপনার ভাই কি বলছে, আপনার আওয়ামী লীগ নেতারা কী বলছে, আপনি শুনেন না?

আপনার ব্যক্তিগত বিষয়তো আপনার ভাই তুলে ধরছে, আপনারাই তুলে ধরছেন। বিএনপির আর কী বলার আছে? বিএনপির শুধু এটুকুই বলার আছে যে, আপনাদের সরকারের চরিত্রটাই একেবারে মাফিয়াদের মতন। ঘরের মধ্যে বসে থেকে ‘জাস্ট ঈশারা’ দিয়ে মানুষ হত্যা করাই আপনাদের সরকারে চরিত্র।

তিনি বলেন, যারা জনগণের ভোটে মেয়র হয় না তারা হয় বেপরোয়া, জমিদার। এই দেশটা কি আপনাদের জমিদারি? ফেরি কি আপনাদের ব্যক্তিগত মালামাল যে আপনি ছাড়া আর কেউ উঠতে পারবে না। আর উঠলে পরে পরিণাম হবে রক্তাক্ত হওয়া। আজ গুন্ডারা হয় মেয়র, মাফিয়ারা হয় মন্ত্রী।

তিনি বলেন, করোনা টিকার ব্যাপারে আমরা এমনই এমনই বিরোধিতা করিনি। আন্তর্জাতিক নিউজ এজেন্সি রয়টার্স বলেছে, বাংলাদেশে ভারত যে টিকা পাঠাচ্ছে সেটা ট্রায়াল করার জন্য পাঠাচ্ছে। অর্থাৎ আমরা গবেষণাগারে তেলাপোকা, ব্যাঙ কেটে এর ইন্টারনাল এনাটমি জানতাম। ঠিক তেমনই আমাদের ল্যাবরেটরির ব্যাঙ হিসেবে গণ্য করছে ভারতের নীতিনির্ধারকরা। আর একারণেই তারা এখানে পরীক্ষামূলকভাবে টিকা পাঠিয়েছে। তারা ভেবেছে- ‘দেখি এই টিকায় বাংলাদেশে কত লোক মারা যায়, তারপর আমরা আমাদেরটা দেবো।

আয়োজক সংগঠনের সদস্য ও বিএনপির স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপুর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ ও স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

About jannatul ferdous

Check Also

আল জাজিরার রিপোর্ট বাংলায়- মোদিবিরোধী বিক্ষোভের পরে বাংলাদেশ ইসলামপন্থী দলটির বিরুদ্ধে

হেফাজতে ইসলামের প্রভাবশালী নেতা গত মাসে ভারতীয় নেতার সাক্ষাতকারের বিরুদ্ধে মারাত্মক বিক্ষোভের জন্য গ্রেপ্তার হওয়া …