Breaking News

আজ সারাদেশে দোকান-মার্কেট বন্ধ থাকবে

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ’ন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আজ ১৭ মার্চ দেশব্যাপী দোকান ও মার্কেট (শপিং মল) বন্ধ থাকবে। গত রবিবার (১৪ মার্চ) দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জ’ন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করতে এ সি’দ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান, হোটেল, কাঁচাবাজার ও ওষুধের দোকান খোলা থাকবে।

এদিকে দোকান মালিক সমিতির পক্ষ থেকে জানানো হয়, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ’ন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ১৭ মার্চ দোকান ও মার্কেট বন্ধ রাখার সি’দ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সম্ভব হলে মার্কেটগুলোতে আলোকসজ্জা করার জন্য সব দোকান মালিকদেরও অনুরোধ করা হয়েছে।এ সংক্রান্ত সভায় অন্যান্যের মধ্যে সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, মহাসচিব মো. জহিরুল হক ভূঁইয়া, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক মো. আ. রাজ্জাক, আবু মোতালেব, হাফেজ হারুন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরোও পড়ুন:ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অবস্থান নেয়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ল’জ্জা থাকলে তিনি বাংলাদেশে আসবেন না বলে মন্তব্য করেছেন

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম শায়েখে চরমোনাই।গতকাল বিকেলে চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলা পাইকপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে

নূরে মদীনা জাহানারা বেগম মহিলা মাদরাসা আয়োজিত বিশাল ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এছাড়াও ভারতের উচ্চ আদালতে পবিত্র কুরআনের ২৬টি আয়াত বাতিলের রিট গ্রহণ করায়

গভীর উ’দ্বেগ ও ক্ষো’ভ প্রকাশ করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম।তিনি বলেন, বাংলাদেশে আসলে ইসলাম ও মানবতার এই দু’শমন মোদিকে সীমান্তে হ’ত্যাকা’রীদের ক’ঙ্কাল উপহার দেয়া উচিত।

যে দেশের সরকার মুসলমানদের নাগরিক অধিকার হরণ করে ভারত থেকে বি’তাড়িত করতে চায়, সেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদিকে নব্বই ভাগ মুসলমানের বাংলাদেশে আসবে কোন মুখে?

তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদি মুসলমানদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। ভরা মওসুমে পানি ছেড়ে দেয়, পানির প্রয়োজনে তা বন্ধ করে দেয়, পেয়াঁজের স’ঙ্কট হলে রপ্তানি বন্ধ করে ভরা মওসুমে পেয়াঁজ দেয়। মোদির ল’জ্জা থাকলে বাংলাদেশ সফরে আসবে না। তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদি ভারতের শিয়া ওয়াক্ফ বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ওয়াসিম রেজভীকে দিয়ে পবিত্র কুরআনের ২৬টি আয়াত বাতিলের রিট করিয়েছে। তিনি আরও বলেন, ২৬টি আয়াত কেন? কুরআনের একটি আয়াত কিংবা আয়াতের অংশকে বাদ দেয়ার শক্তি বিশ্বের কোন মানুষ কিংবা আদালত রাখে না। একটি আয়াতের অংশকেও অস্বীকার করলে বে’ঈমান হয়ে যাবে।মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, ভারত মুসলমানদের সাথে খেলা শুরু করেছে কখনো মসজিদ ভে’ঙ্গে, কখনো সীমান্তে বাংলাদেশী নাগরিক হ’ত্যা করে, কখনো পানি বন্ধ করে দিয়ে, কখনো গরুর গোশত খাওয়ার অ’পরাধে মুসলিম হ’ত্যা করে।ইসলাম ও কুরআনের এই দু’শমনকে বাংলাদেশের মানুষ বরণ করতে পারে না। মাওলানা ইউনুছ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে শহরের বরেণ্য ওলামায়ে কেরাম বক্তব্য রাখেন মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, বিশ্বের সকল পরাশক্তি ইসলাম, কুরআন ও মুসলমান ধ্বং’সে উঠেপড়ে লেগেছে। শিয়া সম্প্রদায়ের কতিপয় লোকেরাও ইসলাম ধ্বং’সে মাঠে নেমেছে।সেই ধারাবাহিকতায় ভারতের শিয়া ওয়াক্ফ বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ওয়াসিম রেজভী কুরআনের ২৬টি আয়াত বাতিলে রিট করেছে। অবিলম্বে কুরআনের দুশমন ওয়াসিম রিজভীকে গ্রে’ফতার করে কঠোর শা”স্তি দিতে হবে। তিনি বলেন, পবিত্র কুরআন শরীফের ২৬টি আয়াতের ওপর আ’পত্তি তুলে তা পরিবর্তনের আবেদন, ভারতের সুপ্রিমকোর্টে তা গ্রহণ, ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জিহাদবি’রোধী ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য, দেশে ‘আড়ং’সহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে দাড়ি-টুপি ও হিজাবের বিরুদ্ধে অবস্থান এবং সারা দেশে মসজিদ-মাদরাসার বিরুদ্ধে গভীর ষ’ড়য’ন্ত্রের কারণে এ দেশের মুসলিম জনতার হৃদয়ে র’ক্তক্ষ’রণ হচ্ছে।

About jannatul ferdous

Check Also

আল জাজিরার রিপোর্ট বাংলায়- মোদিবিরোধী বিক্ষোভের পরে বাংলাদেশ ইসলামপন্থী দলটির বিরুদ্ধে

হেফাজতে ইসলামের প্রভাবশালী নেতা গত মাসে ভারতীয় নেতার সাক্ষাতকারের বিরুদ্ধে মারাত্মক বিক্ষোভের জন্য গ্রেপ্তার হওয়া …