মানসিক শান্তির জন্য ৫৩ নারীকে বিয়ে করেছেন ৬৩ বছরের আবু আব্দুল্লাহ

মানসিক ভাবে একটু শান্তির পরশ পাওয়ার আশায় মানুষ পৃথিবীতে কত কিছুই না করে আসছে যুগ যুগ ধরে, তেমনি একটি ব্যতিক্রম ঘটনার জন্ম দিয়েছেন ৬৩ বছর বয়সী এক সৌদি নাগরিক ।

শুধুমাত্র ব্যক্তিগত আনন্দের জন্য নয়, বরং স্থিতিশীলতা সুখ এবং মানসিক স্বাচ্ছন্দ্য খুঁজতে ৫৩ জন নারীকে বিয়ে করেছেন। সৌদি নাগরিক আবু আব্দুল্লাহ মাত্র ২০ বছর বয়স থাকা অবস্থায় তার থেকে ছয় বছর বয়সে বড় একজন নারীকে প্রথম বিয়ে করেন।

আব্দুল্লাহ প্রথম বিয়ে করার পর, বহুবিবাহের সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা কখনো ভাবেননি কারণ তিনি তার প্রথম স্ত্রী নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্য ছিলেন এবং সেখানে তার সন্তানও ছিল।

প্রথম স্ত্রীর মাঝে অস্বাভাবিক কিছু আচারণের কারণে তিনি আবার দ্বিতীয় বিয়ে করেন, পরবর্তীতে প্রথম এবং দ্বিতীয় স্ত্রীর মধ্যে সমস্যার সৃষ্টি হলে তিনি এক এক করে তৃতীয় এবং চতুর্থ বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন, এবং কিছু দিন পরে প্রথম দুজন স্ত্রীকে তালাক দেন ।

পরবর্তীতে তার তৃতীয় স্ত্রীর সাথে চতুর্থ স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ দেখা দিলে তিনি তাদেরকেও তালাক দিয়ে দেন। এভাবে আবদুল্লাহ তার চতুর্থ স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার পরে পুনরায় নতুন বিবাহ চালিয়ে যান, তিনি সর্বদা তার স্ত্রীদের প্রতি ন্যায্য থাকার চেষ্টা করেছিলেন।

একটি সাক্ষাত্কারে, আবু আবদুল্লাহ বলেন যে, তিনি তার একাধিক বিবাহের মধ্যে ব্যক্তিগত আনন্দ কখনো খুঁজেননি, বর্তমানে এখন তার একটি স্ত্রী আছে এবং পূনরায় বহুবিবাহের আর কোন ইচ্ছা নেই তার।

তিনি বেশিরভাগই সৌদি নারীদের বিয়ে করেছিলেন, তবে কাজের জন্য সৌদিআরবের বাইরে দীর্ঘ সময় ভ্রমণ করার সময় অনেক বিদেশি নারীদেরকেও বিয়ে করতে হয়েছিল তাকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.