এবার ডা. জাফরুল্লাহর ১৭ প্রদেশের থিউরি

রাজনীতি: গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবার নিয়ে এসেছেন ১৭ প্রদেশের থিউরি। এর আগেও তিনি শাসন ব্যবস্থায় নতুন নতুন থিউরি এনেছেন।

তবে তার কোনো থিউরিই এ যাবত আলোর মুখ দেখেনি। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি বলেন, জনগণের অধিকার ফেরত পেতে

রাজপথ দখল করে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। আমাদের অধিকার ফেরত দিতে হলে বাংলাদেশকে ১৫ থেকে ১৭টা প্রদেশে ভাগ করতে হবে। তাহলে দেখা যাবে এখানে যারা

উপস্থিত আছে তাদেরও দুই একজন মুখ্যমন্ত্রী হয়ে যাবে। তারা মুখ্যমন্ত্রী হলে নতুনত্ব দিবে। আমাদের সততা আনবে, উদাহরণ সৃষ্টি করবে। ঘুষ কমাবে দুর্নীতি কমাবে।

খরা ও পরিবেশ বিপর্যয় রোধে সরকারের ব্যর্থতা ও উদাসীনতার প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে গণঅধিকার পরিষদ। এসময় বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন- গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুর, গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক রাসেদ খানসহ অনেকে।

ভারত আন্তর্জাতিক অপরাধ করেছে বলে মন্তব্য করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, গজলডোবার সব সুইচ গেটগুলো খুলে দিয়ে ভারত রাজনৈতিক অপরাধ করেছে। আমাদেরকে না জানিয়ে অতর্কিত খুলে দেয়া অন্যায়।

বাজেট প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রতিটা ক্ষেত্রে ভুল। প্রধানমন্ত্রী আমাদের বোকা বানাচ্ছেন। উনারা এইটা দখল করে রাখবে। তবে বাজেটের কয়েকটি বিষয়ে প্রশংসা করে তিনি বলেন, আমাদের পরিসংখ্যান বিভাগের বাজেট ৮০ ভাগ কেটে দিয়েছে। কারণ উনার খারাপ লাগছিলো আর কত মিথ্যা কথা বলা যায়। সে জন্য পরিসংখ্যানের বাজেটা কেটে দিয়েছে ৮০ ভাগ। আইন বিভাগে আইন নাই, আলেমদের জামিন নাই। তাই আইন বিভাগে বাজেট কেটে দিয়েছে কারণ যেই বিচারপতিদের কোমরে জোর নাই, মেরুদণ্ড সোজা না, তাদেরকে পয়সা দিয়ে পেলে লাভ কি। যোগ করেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.