সৌদি ও দুবাইকে ছাড়িয়ে গেল সিলেট!

স্টাফ রিপোর্টারঃ তীব্র গরমে উষ্ঠাগত হয়ে উঠেছে নগরবাসীর জীবন। ঘরে বাইরে গরমে ঘুম নেই সাধারণ মানুষের। এখন একমাত্র ভরসা বঙ্গোপসাগরে থাকা ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। এই গরম থেকে সোমবারই স্বস্তি মিলতে পারে

জানিয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়া ইয়াসের প্রভাবে দাবদাহের প্রভাব কমতে শুরু করবে। বৃষ্টির আভাস রয়েছে। গুগলের আবহাওয়া রিপোর্টে দেখা যায়, সোমবার বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে

সিলেটের তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি হলেও অনুভূত হচ্ছে ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী দুবাইতে স্থানীয় সময় বিকাল ৪টার দিকে ৩৬ ডিগ্রি হলেও অনুভূত হচ্ছে ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই হিসাবে আজকের তাপমাত্রায় দুবাইকেও ছাড়িয়ে গেছে সিলেট।

অন্যদিকে সৌদি আরবের রাজধানী জেদ্দায় স্থানীয় সময় দুপুর ৩টা দিকে তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর অনুভূত হচ্ছে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, আজ বিকাল থেকেই তাপমাত্রা কমে যাবে। আগামী তিন দিন এটি কমে স্বাভাবিক হতে পারে।

গত কয়েকদিন থেকে দেশের সব জেলায় ই প্রচুর গরম, গরমের কারনে সবাই বৃষ্টির জন্য চেয়ে আছেন। অনেকে বলছেন স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতে একটু বৃষ্টির প্রয়োজন। সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে গরম নিয়ে বেশ পোস্ট করছেন অনেকে নিজ নিজ অবস্থা জানাচ্ছেন। অনেকে আবার বৃষ্টির গান তুমি বৃষ্টিকে ভালবাসো জানতাম তাই বৃষ্টিকে নাম ধরে ডাকতাম, ভিজা জানালার পাশে আঙ্গুল টেনে তুমায় আকতাম …. তুমি বৃষ্টিকে ভালবাস জানতাম তাই বৃষ্টির জানালা খুলে রাখতাম- …… গান করছেন।