সবজি-ডিম ও মুরগির দাম বেড়েছে

আবারও অস্থির হয়ে উঠছে নিত্যপণ্যের বাজার। সপ্তাহ ব্যবধানে বেড়েছে সবজি, ডিম ও মুরগি দাম। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে বাজারে এসে দিশেহারা সাধারণ মানুষ।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রতি কেজি শসার দাম ৮০ টাকা। পটল, ঢেঁড়স ও ঝিঙা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়। প্রতি কেজি করলা ৮০ টাকা ও বরবটি ৮০ থেকে ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এ ছাড়া প্রতি কেজি আলু ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, বেগুন ৬০ থেকে ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে শিম, টমেটো ও গাজর।

ধুন্দল ৬০ টাকা কেজি দরে এবং লাউ আকারভেদে ৬০ থেকে ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি কেজি মুলা ৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২০ টাকা এবং পেঁপে ১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া প্রতি হালি কাঁচা কলার ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সপ্তাহ ব্যবধানে কমেছে পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম। খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাঁচা মরিচের দাম কমে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়।

এ সপ্তাহে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির দাম ১৮০ টাকা, কক ৩০০ থেকে ৩২০ টাকা এবং সোনালি মুরগির দাম ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা। এ ছাড়া গত সপ্তাহে প্রতি ডজন ডিম ১২০ টাকায় বিক্রি হলেও দাম বাড়ায় এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ১৩০ টাকায়। বাজারে ৭০০ টাকা কেজি গরুর মাংস এবং ৮০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

সপ্তাহ ব্যবধানে মাছের দাম কিছুটা বেড়ে প্রতি কেজি রুই মাছ ৩২০ থেকে ৪৫০ টাকা, তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ২০০ টাকায়। এ ছাড়া প্রতি কেজি শিং মাছ ৩৫০ থেকে ৪৬০ টাকা এবং কৈ মাছ কেজিপ্রতি ২০০ থেকে ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি চিংড়ির দাম পড়ছে ৮০০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা। এক কেজির একটি ইলিশের দাম পড়ছে ১৫০০ থেকে ১৮০০ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.