ফে’ন্সিডিলসহ নারী আওয়ামী লীগ নেত্রী গ্রেফতার

৬ বোতল ফে’ন্সিডিলসহ আটক হয়েছেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নারী আওয়ামী লীগ নেত্রী সোনিয়া আক্তার। তার বিরুদ্ধে দলের পরিচয়ের আড়ালে ই’য়াবা ও ফে’ন্সিডিল বিক্রির অভিযোগও রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) উপজেলার গোবিন্দাসী পূর্বপাড়াতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে জেলা মা’দক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযানের সময় সোনিয়ার স্বামী মো. রাজ্জাক পালিয়ে যান।

জানা গেছে, সোনিয়ার স্বামী আব্দুর রাজ্জাক একজন সাবেক যুবলীগ নেতা। স্বামী-স্ত্রী মিলে দলীয় পরিচয়ের আড়ালে মা’দক বিক্রি করতেন। এর আগেও পুলিশ কয়েকবার তাদের গ্রেফতার করেছিল।

মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মো. সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবারের অভিযান পরিচালিত হয়। তিনি জানান, গোবিন্দাসী গ্রামের মো. রাজ্জাকের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী নারী আওয়ামী লীগ নেত্রী সোনিয়াকে আটক করা হয়।

এ সময় তার বাড়ি থেকে ৬ বোতল ফে’ন্সিডিল পাওয়া যায়। পরে ভূঞাপুর থানায় নিয়ে তাকে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

সিরাজুল আরও জানান, সোনিয়া আক্তার দীর্ঘদিন ধরে মা’দক কেনা-বেচা করছিলেন। সুস্পষ্ট তথ্য থাকায় তাদের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। তার স্বামী রাজ্জাক অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে পালিয়ে গেছেন। সোনিয়াকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার পর তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে তোলা হয়। পরে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠান।

উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলিফ নূর মিনি বলেন, মা’দকসহ সোনিয়ার গ্রেফতারের বিষয়টি জেনেছি। অসুস্থ থাকায় আপাতত এ ব্যাপারে তিনি আর কথা বলতে পারেনি। পরে বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করবেন বলে জানিয়েছেন আলিফ নূর মিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.