আপন ভাগিনীর সঙ্গে মামার জোরপূর্বক ফুর্তি, অতঃপর যা হলো

সংবাদ: মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলায় আপন ভাগনীকে ধর্ষণের অভিযোগে কাশেম মিয়া (৩২) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি উপজেলার সদর জায়ফরনগর ইউনিয়নের পশ্চিম ভবানীপুর গ্রামের শামসু মিয়ার ছেলে। রবিবার (২১ আগস্ট) ভোরে ধর্ষক কাশেম মিয়াকে বসতবাড়ী থেকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিতা মেয়েটি অভিযুক্ত কাশেম মিয়ার স্ত্রীর আপন বোনের মেয়ে। আত্নীয়তার সূত্রে সে প্রায়ই তাদের বাড়িতে আসা যাওয়া করতো।

আসা-যাওয়ার এক পর্যায়ে মেয়েটির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে কাশেম। গত ১৯ আগস্ট কৌশলে কাশেম মেয়েটিকে ফুঁসলিয়ে পাশ্ববর্তী উপজেলা কুলাউড়ায় নিয়ে যায়।

সেখানে এক জায়গায় রেখে মেয়েটির ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে দুই দিন ধরে ধর্ষণ করে। এ ঘটনার জানাজানি হলে এলাকাবাসীর সহায়তায় পুলিশ ধর্ষক কাশেমকে নিজ বাড়ি থেকে

গ্রেফতার করে এবং ভিকটিম কে পুলিশে হেফাজতে নিয়ে আসেন। পরে মেয়েটির মা থানায় বাদী হয়ে অভিযুক্ত কাশেমের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফরহাদ আহমদ বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে (মামলা নং ০৭, তারিখ ২১/০৮/২০২২) রুজু করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.