আনুষ্ঠানিকভাবে মাহমুদউল্লাহর অবসর ঘোষণা

গত জুলাইতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে সেঞ্চুরি করেই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিতে চেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। সতীর্থদের এ ব্যাপারে জানালেও গণমাধ্যম ও বিসিবিকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানানানি।

এতদিন বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটে রেখেছিলেন। তবে বুধবার রাতে বিসিবি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে, টেস্ট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবসর নিয়ে ফেলেছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক।

অফ ফর্মে টেস্ট ফরম্যাট থেকে আগেই বাদ পড়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। ১৬ মাস পর গত জুলাইতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। সেই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে দারুণ এক ইনিংসও খেলেছেন।

উপহার দেন ১৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস। কিন্তু এমন ইনিংস খেলার পরদিনই অভিমানে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিতে চেয়েছিলেন এই অলরাউন্ডার। পরে বিসিবির মধ্যস্থতায় শেষ পর্যন্ত আর ঘোষণার আনুষ্ঠানিকতায় যাননি।

তবে পাক্কা চার মাস পর মাহমুদউল্লাহ বিসিবির মাধ্যমে অবসরের ঘোষণা দিয়েই দিলেন। হারারে টেস্টের পঞ্চম দিনে মাঠে নামার আগেই মাহমুদউল্লাহকে ‘গার্ড অব অনার’ দিয়ে আনুষ্ঠানিকতা সেরেছেন সতীর্থরা। তখনই স্পষ্ট হয়ে যায় যে টেস্ট ক্রিকেটে আর ফিরছেন না তিনি।

মূলত গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর গুঞ্জন ওঠে মাহমুদউল্লাহ টেস্ট থেকে বাদ পড়ছেন। সেই গুঞ্জন সত্যিও হয় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঠিক তার পরের একমাত্র টেস্টে বাদ পড়ে। এমনকি গত বছরের মার্চে বিসিবি ঘোষিত কেন্দ্রীয় টেস্ট চুক্তিতেও ছিলেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *