যুবদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষণার এক দিনের মধ্যেই স্থগিত

নোয়াখালীর সেনবাগে যুবদলের ৯টি ইউনিয়নের আহবায়ক কমিটির ঘোষণার এক দিন না যেতেই ঘোষিত আহবায়ক কমিটির স্থগিত করেছে নোয়াখালী জেলা যুবদল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা যুবদলের সভাপতি মো. মঞ্জুরুল আজিম সুমন ও সেক্রেটারি নুরুল আমিন খান স্বাক্ষরিত দলীয় প্যাডের মাধ্যমে কমিটি স্থগিত করেন।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দলীয় শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে জাতীয়তাবাদী যুবদলের সেনবাগ উপজেলা শাখার অধীনস্থ ঘোষিত ৯টি ইউনিয়নের যুবদলের আহবায়ক কমিটির কার্যক্রম স্থগিত করা হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বলবত থাকবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক সুলতান সালাউদ্দিন লিটন ও সদস্য সচিব সাহেব উদ্দিন রাসেল স্বাক্ষরিত পৃথকভাবে একযোগে ৯টি ইউনিয়নের ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

ঘোষিত কমিটিতে ছাতারপাইয়া ইউনিয়নে মো. আবু জাফর আহমদকে আহবায়ক ও কামাল হোসেনকে সদস্য সচিব, কেশারপাড় ইউনিয়নে মো. জসিম পাটোয়ারীকে আহবায়ক ও ডাক্তার ফারুক হোসেনকে সদস্য সচিব,

ডমুরুয়া ইউনিয়নে মো. জিয়াউল হককে আহবায়ক এবং জাহাঙ্গীর আলম মানিককে সদস্য সচিব, কাদরা ইউনিয়নে রাজু আহম্মদ বিপ্লবকে আহবায়ক ও মো. জহির আলমকে সদস্য সচিব,

অর্জুনতলা ইউনিয়নে শামছুল হুদা দুলালকে আহবায়ক ও খোরশেদ আলম ভূঁইয়াকে সদস্য সচিব, কাবিলপুর ইউনিয়নে মহিন উদ্দিন মহিনকে আহবায়ক ও মোয়াজ্জেম হোসেন দুলালকে সদস্য সচিব, মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে ইসমাইল হোসেন পলাশকে আহবায়ক ও জহিরুল ইসলাম মাসুদকে সদস্য সচিব,

বীজবাগ ইউনিয়নে আবুল কালামকে আহবায়ক করা হয়েছে ও আবুল কাশেমকে সদস্য সচিব, নবীপুর ইউনিয়নে মাইনুল হোসেন সজিবকে আহবায়ক ও রহমত উল্লাহ জসিমকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন করা হয়।

জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন খান বলেন, সেনবাগে বিএনপির ৫টি গ্রুপ সক্রিয়। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই কমিটি স্থগিত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.