নয়াপল্টনে শাওনের জানাজা সম্পন্ন, হাজার হাজার নেতাকর্মীর ঢল

মুন্সীগঞ্জে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে আহত হয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া যুবদল নেতা শহীদুল ইসলাম শাওনের জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার বাদ মাগরিব বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মী অংশ নেয়।

এর আগে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টায় লাশ হস্তান্তর করলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দিকে লাশ নিয়ে রওয়ানা হয় নেতাকর্মীরা।

এ সময় বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: রফিকুল ইসলাম, যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সাধারন সম্পাদক মোনায়েম মুন্নাসহ বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, শাওনের লাশ নয়াপল্টনের দিকে আসছে সংবাদ শোনার পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা সহযোদ্ধা হত্যার বিচারের দাবিতে স্লোগানে স্লোগানে এলাকা প্রকম্পিত করে তোলে।

উল্লেখ্য, জ্বালানি তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি এবং দলীয় নেতাকর্মী হত্যার প্রতিবাদে বুধবার বিকেলে মুন্সিগঞ্জ শহরের অদূরে মুক্তারপুরে বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করে জেলা বিএনপি। সেখানে বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে যুবদলকর্মী শাওন মারাত্মকভাবে আহত হন। পরে তাকে ঢামেক হাসপাতালে আনা হলে বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। শাওন পেশায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালক ছিলেন। তিনি মুক্তারপুর ওয়ার্ড যুবদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.