আ.লীগের বর্ধিত সভায় হট্টগোল, এমপির দিকে পানির বোতল নিক্ষেপ -
Saturday , 3 September 2022 | [bangla_date]

আ.লীগের বর্ধিত সভায় হট্টগোল, এমপির দিকে পানির বোতল নিক্ষেপ

প্রতিবেদক
Jannatul
September 3, 2022 9:16 pm

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় হট্টগোল হয়েছে। এসময় নেতাকর্মীদের সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়েছে বাঁশখালী আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর।

তাছাড়া উপস্থিত নেতারা ক্ষুব্ধ হয়ে মোস্তাফিজুর রহমানের দিকে পানির বোতল ও খাবার প্যাকেট ছুড়ে মারেন বলে জানা গেছে। পরে উপস্থিত কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম মহানগরীর ষোলশহর এলজিইডি মিলনায়তনে আয়োজিত বর্ধিত সভায় এ ঘটনা ঘটে।

সভায় উপস্থিত বেশ কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্ধিত সভায় পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী উপজেলার নেতাদের কাছ থেকে সাংগঠনিক বিষয়ে জানতে চান কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন।

এসময় বাঁশখালীতে সাংগঠনিক গঠনতন্ত্র অমান্য করে ইউনিয়ন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের বাদ দিয়ে সম্মেলন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন উপজেলা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল গফুর। সেসব সভায় সাধারণ সম্পাদক যাচ্ছেন না বলে সভাকে অবহিত করেন তিনি।

আব্দুল গফুরের বক্তব্যের একপর্যায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে পাল্টা বক্তব্য দিতে শুরু করেন মোস্তাফিজুর রহমান৷ এসময় তার বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান বাঁশখালীর সম্মেলনের দায়িত্বে থাকা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. ইদ্রিস।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বাঁশখালীতে শৃঙ্খলা মানা হচ্ছে না। তার এমন বক্তব্যের পরই দাঁড়িয়ে জেলা নেতাদের নামে বিষাদগার করে বক্তব্য দিতে থাকেন মোস্তাফিজুর রহমান।

এরপর জেলা ও উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতারা দর্শক সারি থেকে মঞ্চের কাছে গিয়ে এমপি মোস্তাফিজের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এসময় উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। একপর্যায়ে পানির বোতল ও খাবারের প্যাকেট এমপির দিকে ছুড়ে মারেন।

পরে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, আজকের বর্ধিত সভায় কথা কাটাকাটি হয়েছিল। বাঁশখালী উপজেলার কমিটি গঠন ও সম্মেলন নিয়ে বাঁশখালীর এমপির সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছে। অন্য কিছু হয়নি। পরে আবার ঠিক হয়ে গেছে।

বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল গফুর বলেন, বর্ধিত সভায় সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে কিছু তর্কাতর্কি কথা কাটাকাটি হয়েছিল। এটা বর্ধিত সভায় হয়ে থাকে। বাঁশখালীর এমপি মোস্তাফিজুর রহমানকে বর্ধিত সভায় বোতল মারা হয়েছে শোনা যাচ্ছে— এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়টা আমি বলতে পারি না।

এ বিষয়ে জানতে বাঁশখালী আসনের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। সভা শেষে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, এটা ছিল একেবারেই ঘরোয়া মিটিং। এ ধরনের মিটিংয়ে বিভিন্ন মতপার্থক্যের বিষয় উঠে আসে। স্বাভাবিকভাবেই আলোচনা অনেক সময় শান্তিপূর্ণ হয়, অনেকসময় উত্তপ্ত হয়, বাকবিতণ্ডা হয়। আজকের (শনিবার) সভায়ও কিছু ‍উত্তেজনাকর বক্তব্য এসেছিল। কিন্তু আমরা সেগুলো সামাল দিয়ে সভার হ্যাপি এন্ডিং করেছি।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপির সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক ওয়াসিকা আয়েশা খান এমপি, চন্দনাইশের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরীসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

সর্বশেষ - রাজনীতি