প্রেম মেনে না নেওয়ায় ঢাকায় যাওয়ার পথে মাকে খু’ন, ছুরিসহ মেয়ে আটক

অপরাধ: বগুড়ার শেরপুর থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মেয়ের ছুরিকাঘাতে মায়ের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মেয়েকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে মেয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন।

সোমবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার চান্দাইকোনা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ঝুমা কর্মকার (৪৫) বগুড়ার শেরপুর উপজেলার শাহাপাড়া গ্রামের শিবদাস কর্মকারের স্ত্রী। এ ঘটনায় তার মেয়ে সিঁথি কর্মকারকে (২৪) আটক করেছে পুলিশ। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।

আরও পড়ুন:এবার ৪০ জনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

রায়গঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মাদ সিদ্দিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, মা ও মেয়ে একটি বাসে ঢাকায় যাচ্ছিলেন। চান্দাইকোনা বাসস্ট্যান্ডে বাসটি থামলে নেমে যান সিঁথি। এরপর তার মা বাস থেকে নেমে মেয়েকে কারণ জিজ্ঞেস করেন। ওই সময় কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে সিঁথি ব্যাগ থেকে ছুরি বের করে মাকে আঘাত করে। স্থানীয়রা ঝুমা কর্মকারকে রায়গঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আসিফ বলেন, অভিযুক্ত সিঁথিকে আটকের পর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, সিঁথির একটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সর্ম্পক আছে। বিষয়টি পরিবার মেনে না নেওয়ায় ক্ষোভে সে তার মাকে হত্যা করেছে। ঝুমা কর্মকারের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।